যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে সিঙ্গাপুরগামী সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট এয়ার টার্বুলেন্সের কবলে পড়ার ঘটনায় আহতদের মধ্যে ২০ জনকে নিবির পর্যবেক্ষণ ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের সম্মিতিজ শ্রীনাকরিন হাসপাতালের পরিচালক আদিনুন কিত্তিরতনপাইবুল বলেন, যারা আইসিইউতে যাছে তাঁদের নিবিড় পরিচর্যার প্রয়োজন। তবে আহতদের মধ্যে কেউ আশঙ্কাজনক নেই।

আহতদের মধ্যে ৪০ জনকে এখনও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে ২২ জনের মেরুদণ্ডে আঘাত রয়েছে এবং ছয়জনের মস্তিষ্ক ও মাথার খুলিতে আঘাত রয়েছে।

সম্মিতিজ শ্রীনাকরিন হাসপাতালের পক্ষ থেকে বলা হয়, আহতদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়স্ক ব্যক্তির বয়স ৮৩ ও সবচেয়ে কমবয়সী শিশুর বয়স ২।

গত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে সিঙ্গাপুরগামী সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট এয়ার টার্বুলেন্সের কবলে পড়ার পর থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে জরুরি অবতরণ করে। এয়ার টার্বুলেন্সের কারণে মাঝ আকাশে ফ্লাইটটিতে তীব্র ঝাঁকুনি তৈরি হলে এক যাত্রী নিহত হন। আহত হন ১০৪ জন। উড়োজাহাজটিতে ২১১ জন যাত্রী ও ১৮ জন ক্রু ছিল। এটি গত বুধবার সিঙ্গাপুর পৌঁছায়।

আরও পড়ুন... জীবন নিয়ে উক্তি