আবার বৈশ্বিক ধনকুবেরদের সবচেয়ে প্রিয় গন্তব্য হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার সেরা হলো মধ্যপ্রাচ্যের উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশটি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠান হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্সের ‘প্রাইভেট ওয়েলথ মাইক্রেশন রিপোর্ট ২০২৪’ প্রতিবেদনের বরাতে সিএনবিসি জানায়, চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত যে ১০টি শহরে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক কোটিপতি নিজেদের সম্পত্তি স্থানান্তর করেছেন, তার তালিকা দেয়া আছে। এতে বলা হয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে আরব আমিরাতে ন্যূনতম ১০ লাখ ডলারের সম্পত্তি কিনেছেন বা দেশটির ব্যাংকে রেখেছেন, এমন ধনীদের সংখ্যা এক লাখ ২৮ হাজারে পৌঁছেছে। এটি একটি রেকর্ড। এর আগে একক কোনো বছরে বিশ্বজুড়ে এত ধনী আমিরাতে তাদের সম্পদ স্থানান্তর করেননি।

যে গতিতে বৈশ্বিক ধনীরা আমিরাতে তাদের অর্থ-সম্পদ স্থানান্তর করছেন, তাতে বছর শেষ হওয়ার আগেই এক লাখ ২৮ হাজার জনের সঙ্গে আরও যোগ হবেন অন্তত ছয় হাজার ৭০০ জন।

আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথ থেকে তথ্য নিয়ে ‘প্রাইভেট ওয়েলথ মাইক্রেশন রিপোর্ট ২০২৪’ প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করেছে হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স। গত বছরও প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স। সেই প্রতিবেদনে তথ্য অনুযায়ী, ২০২৩ সালে দুবাইয়ে নিজেদের সম্পত্তি স্থানান্তর করেছিলেন বিশ্বের এক লাখ ২০ হাজার কোটিপতি।

তথ্য অনুযায়ী, ২০২৪ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বের মোট ১০টি দেশে সম্পদ স্থানান্তর করেছেন বেশিরভাগ ধনকুবের। এই তালিকায় রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র (২য়), সিঙ্গাপুর (৩য়), কানাডা (৪র্থ), অস্ট্রেলিয়া (৫ম), ইতালি (৬ষ্ঠ), সুইজারল্যান্ড (৭ম), গ্রিস (৮ম), পর্তুগাল (৯ম) ও জাপান (১০ম)।

আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক গোয়েন্দাদের মতে, সহজ ও অনুকূল করনীতি, কৌশলগত অবস্থান এবং আধুনিক অবকাঠামোর কারণে গত বেশ কয়েক বছর আগে থেকেই আমিরাতে সম্পদ স্থানান্তর কিংবা স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য আগ্রহ দেখা যাচ্ছে বিশ্বের ধনকুবেরদের মধ্যে।

খবর: সিএনবিসি।

আরও পড়ুন... জীবন নিয়ে উক্তি